চবিতে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে চালু হচ্ছে ২টি অনুষদ ও ৯টি বিভাগ

cu-logoমিজানুর রহমান:
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) আসন্ন ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে চালু হচ্ছে ২টি অনুষদ ও ৯টি বিভাগ। শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় ২৯তম সিনেটে এ তথ্য জানান বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

উপাচার্য জানান, বিজ্ঞান অনুষদের অধীনে নতুন ৩টি বিভাগ খোলা হয়েছে। বিভাগ গুলো হলো ডিপার্টমেন্ট অব নিউক্লিয়ার সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি, ডিপার্টমেন্ট অব ফুড এন্ড নিউট্রিশন সায়েন্স, ডিপার্টমেন্ট অব ক্লাইমেট চেঞ্জ এবং ডিজেস্টার ম্যানেজমেন্ট। সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের অধীনে ডিপার্টমেন্ট অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ ও ডিপার্টমেন্ট অব ক্রিমিনোলজি এন্ড পুলিশ সায়েন্স। ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের অধীনে ডিপার্টমেন্ট অব ইন্স্যুরেন্স এন্ড রিস্ক ম্যানেজমেন্ট। ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের অধীনে ডিপার্টমেন্ট অব মেটেরিয়াল সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিপার্টমেন্ট অব ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং। এছাড়া বাংলাদেশ স্টাডিজ ও মুক্তিযুদ্ধ (ডিপার্টমেন্ট অব লিবারেশন ওয়ার) নামে কলাবিদ্যা মানববিদ্যা অনুষদের অধীনে একটি বিভাগের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্স এন্ড ফিশারিজকে একটি পুর্ণাঙ্গ অনুষদ করা হয়েছে। আর এই অনুষদের অধীন বিভাগ গুলো হলো ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্স, ডিপার্টমেন্ট অব ওশানোগ্রাফি ও ডিপার্টমেন্ট অব ফিশারিজ। অন্যদিকে ইনস্টিটিউট অব ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সকে একটি পুর্ণাঙ্গ অনুষদে রূপ দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে বাজেট পরবর্তী আলোচনায় বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান ও চবির সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান ভূইঁয়া বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণার একটি মৌলিক স্থান। দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে গবেষণা কাজকে আরো প্রসারিত করতে হবে। শুধু বিভাগ বাড়ালে ও বেশি বেশি ছাত্র ভর্তি করালে হবে না শিক্ষার মান বাড়ানোর প্রতি নজর দিতে হবে।