শর্ত সাপেক্ষে আন্দোলন প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃcu_bcl_859091

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটিতে প্রত্যাশিত পদ না পাওয়া নেতা-কর্মীদের আন্দোলন শর্ত সাপেক্ষে প্রত্যাহার করে নিয়েছে আন্দোলনরত নেতা-কর্মীরা।

এ প্রসঙ্গে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক মিজানুর রহমান বিপুল বলেন, “আমাদের রাজনৈতিক অভিভাবক ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আশ্বাসে আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) আমরা অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করেছি। কিন্তু আগামীকাল বিকেল চার টার মধ্যে যদি আমাদের দাবি না মানা হয় তাহলে আগামী রবিবার থেকে আমরা সর্বাত্মক ধর্মঘট পালন করবো।”

প্রসঙ্গত,গত সোমবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ২০১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সংসদ। ঐদিন কমিটি ঘোষণার পর থেকেই পদবঞ্চিত ও প্রত্যাশা অনুযায়ী পদ না পাওয়া নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে এক ঘন্টা তালা ঝুলিয়ে রাখে। পরে মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ১নং গেইট সড়কও অবরোধ করে তারা। এসময় তারা বুধবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে অবরোধের ডাক দেয়। অবরোধের প্রথম দিন আন্দোলনের আজ বুধবার  বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটলে চালকে অপহরন ও  ইট-পাথর ছুঁড়ে  থাকে ছাত্রলীগ কর্মীরা। এ হামলায় ষোলশহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ পরিদর্শক জাকির হোসেন সহ আহত হয় দু্ই শিক্ষার্থী ।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে চবি ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ অন্দোলনরত পক্ষের সাথে আলোচনায় বসার জন্যে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে তাদেরকে ঢাকায় যেতে বলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন।